বিএনপির প্রভাবশালী সদস্য সাহাব মিয়া সীতাকুণ্ড ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ওয়ার্ড কমিটির সন্মেলনে

বিএনপির প্রভাবশালী সদস্য সাহাব মিয়া

বিএনপির প্রভাবশালী সদস্য সাহাব মিয়া

বিএনপির প্রভাবশালী সদস্য সাহাব মিয়া সীতাকুণ্ড ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ওয়ার্ড কমিটির সন্মেলনে

ডেস্ক নিউজঃ সীতাকুণ্ড উপজেলার ৯নং ভাটিয়ারী ইউনিয়ন, ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সম্মেলনে বিএনপির প্রভাবশালী সদস্য সাহাব মিয়া অতিথির আসনে।

সীতাকুণ্ড উপজেলা বিএনপির প্রভাবশালী সদস্য ও ৯নং ভাটিয়ারী ইউনিয়ন বিএনপির অর্থদাতা মোঃ সাহাব মিয়া পিতা মৃত আহমদুর রহমান, গ্রাম-ভাটিয়ারী, তেলিপারা, সীতাকুণ্ড, চট্টগ্রাম একজন চারদলীয় ঐক্যজোটের সদস্য। তিনি ১৩/১৪ সালে বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। তাছাড়াও বিএনপির অনেক অনুষ্ঠানে আর্থিক সহায়তা করতেন বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ নেতৃবৃন্দ।

গত ০১/১০/২০১৯ ইং বিকাল ৫ টায় ভাটিয়ারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এর সম্মেলনে বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের উপস্থিতিতে ষ্টেজে অতিথির আসন গ্রহন করেন সাহাব মিয়া। এতে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

বিএনপির প্রভাবশালী সদস্য সাহাব মিয়া

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সভাপতি আলহাজ্ব নাজিম উদ্দীন বলেন, সাহাব মিয়া ১৩ সালের দিকে বিএনপির সাথে ছিলেন। তবে ১৪ সালের পর হতে আওয়ামীলীগ এর সাথে আছে। এলাকার সম্মানিত ব্যক্তি হিসেবে ষ্টেজে তুলেছি, তবে সাহাব মিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ আগে পাইনি। এখন যেহেতু অভিযোগ এসেছে তা খতিয়ে দেখা হবে।

ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ফারুক বলেন, সাহাব মিয়া আগে বিএনপির সাথে জড়িত ছিলেন। তবে কিছুদিন আগে থেকে আওয়ামীলীগ এর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা যাচ্ছে। আওয়ামীলীগ সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনা অনুপ্রবেশকারী ঠেকাতে বলছেন আপনারা সীতাকুণ্ডের আওয়ামীলীগে নাশকতারীদের পাকাপোক্ত করছেন এর জবাবে বলেন, ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দের কাজ এর বেশী আমি বলতে পারবো না।

আওয়ামীলীগ নেতা শামছুল আলম বলেন, সাহাব মিয়াদের মতো বিএনপির নাশকতাকারীদের অর্থদাতা আওয়ামীলীগ সন্মেলনের ষ্টেজে দেখে খুবই মর্মাহত হলাম, আমরা তাই ষ্টেজ ছেড়ে চলে এসেছি। সাহাব মিয়া সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার গড়া সংগঠনকে তিলেতিলে শেষ করে দিচ্ছে অনুপ্রবেশকারীরা। তাদের টাকার কাছে অন্ধ সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ। টাকার বিনিময়ে কমিটি হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন।

নতুনভাবে ওয়ার্ড কমিটি স্বচ্ছ ভোটের মাধ্যমে নির্বাচন করতে জোর দাবী জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনি মিস করেছেন